শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :
ব্রাজিলে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড বিজনেস সামিট আয়োজনে অংশগ্রহণ করবেন মো: সাজ্জাদুল হাসান তুরাগে ৫২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর- প্রার্থী হিসাবে আলোচনায় সোহেল উত্তরখানে ঝুঁকিপূর্ণ বিল্ডিং দিয়ে ভাড়া ব্যাবসা করছে বাড়ি মালিক মিরসরাইয়ে বর্ণিল আয়োজনে রথযাত্রা মহোৎসব অনুষ্ঠিত মিরসরাইয়ে ওয়াহেদপুরে ঝুলন্ত অবস্থায় গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার মিরসরাইয়ে পানিবন্দী মানুষের পাশে এমপি রুহেল ভারী বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে মিরসরাইয়ের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত,পানিবন্দি সহাস্রাধিক পরিবার, খাদ্য সহায়তা প্রদান সেনবাগে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সাইফুল আলম দিপু মিরসরাইয়ে নিজামপুরে আবারও ট্রেনের ইঞ্জিনে যান্ত্রিক ক্রুটি হাতিয়ায় পেইড ভলান্টিয়ারদের চাকুরি পূণঃবহালের দাবিতে মানববন্ধন

বরকলে অজ্ঞাত রোগে ৫ জনের মৃত্যু আক্রান্ত আরো ১৪ জন

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক : / ২৭৭ বার পঠিত
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০২৪, ৩:৩৮ অপরাহ্ণ

আরিফুল ইসলাম সিকদার: রাঙামাটির বরকল উপজেলার ভূষণছড়া ইউনিয়নের ঠেগা চান্দবী ঘাট নামক এলাকায় অজ্ঞাত রোগে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে ১৪ জন অসুস্থ রয়েছে। অজ্ঞাত রোগের প্রাদূর্ভাবে এলাকায় চরম আতংক বিরাজ করছে বলে এলাকার লোকজন জানিয়েছে।

ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রীতিশংকর দেওয়ান ও গ্রাম প্রধান ( কার্বারী) শীব রতন চাকমা বলেন- গ্রামে গত জানুয়ারী মাস থেকে এ অজ্ঞাত রোগ দেখা দেয়। অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত রোগীর প্রথমে শরীরে প্রচন্ড ব্যাথা, জ্বর, এর পরে রক্ত বমি হয়। যেসব রোগী রক্ত বমি করেছে তারা মারা গেছে বলে জানায়। তারা আরো জানায়- গত জানুয়ারীতে ঠেগা চান্দবী ঘাট গ্রামের বাসিন্দা লবিন্দর চাকমার ছেলে পত্ত রঞ্জন চাকমা (২৫) এ অজ্ঞাত রোগে মারা যায়।
এরপর ফেব্রুয়ারিতে একই গ্রামের পিদেইয়ে চাকমার ছেলে বিমলেশ্বর চাকমা (৫৫) ও মিলন শংকর চাকমার ছেলে ডালিম কুমার চাকমা (৩৫) চলতি মার্চ মাসে লবীন্দর চাকমার ছেলে চিত্তি মোহন চাকমা (৬০) ও ডালিম কুমার চাকমার মেয়ে সোনি চাকমা (৮) মারা যায়। মাত্র ১৭ দিনের ব্যবধানে একই পরিবারের পিতা ডালিম কুমার চাকমা আর তার মেয়ে সোনি চাকমা মারা। আর এ দিকে একই পরিবারের চিত্তি মোহন চাকমা আর পত্ত রঞ্জন চাকমা মারা যায় বলে ওয়ার্ড মেম্বার প্রীতিশংকর দেওয়ান ও গ্রাম প্রধান শীবরতন চাকমা জানান।
ঠেগা চান্দবী ঘাট গ্রামে ৮৬ পাহাড়ী পরিবার রয়েছে। বর্তমানে ওই গ্রামবাসীর মনে চরম আতংক বিরাজ করছে।
ঠেগা চান্দবী ঘাট গ্রামের আশে পাশে কোন ক্লিনিক কিংবা চিকিৎসা সেবার কেন্দ্র নেই। অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত কিছু সংখ্যক রোগী গ্রামের বৈদ্য ও কবিরাজের শরণাপন্ন হয়ে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে। আবার কেও ঠেগা খুব্বাং বাজারে ব্র্যাকের স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছে।
জানা যায়- ঠেগা চান্দবী ঘাট গ্রামে পানীয় জলের ব্যবস্থা নেই। নেই রিংওয়েল কিংবা টিউবওয়েল। কুয়া ও ছড়ার পানি পান করতে হয় গ্রামবাসীদের। ফলে এ দূষিত পানি পান করার কারনে নানা রকমের রোগে আক্রান্ত হতে হয় দূর্গম অঞ্চলে বসবাসকারী মানুষদের।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বরকল উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডাঃ মংখ্যসিং সাগর জানান- এ অজ্ঞাত রোগে আক্রান্তের ব্যাপারে তিনি জেনেছেন।
তিনি জানান- ডাঃ কামরুল হাসানের নের্তৃত্বে ৬ সদস্যর একটি মেডিকেল টিম আগামীকাল ঠেগা চান্দবী ঘাট গ্রামে পৌঁছাবে। এ অজ্ঞাত রোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন- ফুডপয়জনিং ( খাদ্য বিষক্রিয়া) খাদ্য থেকে এ রোগ হতে পারে বলে তিনি প্রাথমিক ধারনা করছেন।

এছাড়া আজ সকালে অত্র উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মং ক্যাসিং সাগরের নেতৃত্বে আরো একটি টিম ওখানে পৌঁছেছেন বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে ইউএনও মো ফোরকান অনুপম এলাহী জানান,উপজেলা প্রশাসন কতৃক সার্বক্ষণিক খোজখবর নেয়া হচ্ছে।ইতিমধ্যে দুটি মেডিকেল টিম পাঠানো হয়েছে।এছাড়াও ওই এলাকাটি সীমান্তবর্তী হওয়াতে ৪৫ বিজিবি কতৃক সার্বক্ষণিক সহায়তা প্রদানের চেষ্টা করা হচ্ছে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর