মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সংবাদ শিরোনাম :

গাজীপুরে জায়েদা খাতুন নতুন নারী মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পেলেন।

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক : / ১৬৯ বার পঠিত
আপডেট : বুধবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ৫:৫৩ অপরাহ্ণ

মো: মোস্তফা ( গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি)ঃগাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে দায়িত্ব নিয়েছেন মো. জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন। বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সিটি করপোরেশনের প্রথম নারী মেয়র হিসেবে তিনি গতকাল সোমবার তার কার্যক্রম শুরু করেছেন। জায়েদা খাতুন মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের দিনটিকে বর্ণিল করে সাজানো হয়।

এ উপলক্ষ্যে নগর ভবন আলোকসজ্জাসহ নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে বেশ কিছু তোরণ নির্মাণ করা হয়। গতকাল সোমবার দুপুরে শহরের বঙ্গতাজ অডিটোরিয়ামে অভিষেক অনুষ্ঠানে দায়িত্ব নেন তিনি। এর আগে সকাল থেকে নগরীর ৫৭টি ওয়ার্ড থেকে কয়েকশ’ নেতাকর্মী ও সমর্থকরা বিভিন্ন যানবাহনে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে নগর ভবন প্রাঙ্গণে এসে উপস্থিত হতে থাকেন।

সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম সফিউল আজম নবনির্বাচিত মেয়র জায়েদা খাতুনকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন। আগের দিন ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সফিউল আজমের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। অভিষেক অনুষ্ঠানকে ঘিরে সকাল ৯টার পর থেকেই সিটি করপোরেশন এলাকায় দেখা যায় উৎসবের আমেজ।

কয়েকশ’ নেতাকর্মী সমর্থকরা বাদ্য বাজিয়ে নেচে গেয়ে উল্লাস করতে থাকেন। এক পর্যায়ে পুরো এলাকা লোকারণ্যে পরিণত হয়। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- সাবেক সংসদ সদস্য কাজী মোজাম্মেল হক, সিটি করপোরেশনের সচিব আব্দুল হান্নান, বিভিন্ন থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী এবং নবনির্বাচিত কাউন্সিলররা। অভিষেক অনুষ্ঠানে জায়েদা বলেন, ‘আপনারা লাখ লাখ ভোট দিয়ে আমাকে মেয়র নির্বাচিত করেছেন।

এজন্য আমি আমার পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাদের শুভেচ্ছা জানাই। প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা এবং আমার ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে একটি সুন্দর ও আধুনিক নগর উপহার দেবো। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আপনারা মাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। মা-ও বলেছেন, তার জীবনবাজী রেখে আপনাদের পাশে থাকবেন, সেবা দেবেন। এরপর জায়েদা নগর ভবনে গিয়ে চেয়ারে বসেন।

২৫ মে গাজীপুরের আলোচিত সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আজমত উল্লা খানকে ১৬ হাজার ১৯৭ ভোটে হারিয়ে চমক দেখান জায়েদা খাতুন, যিনি কখনো রাজনীতিতে জড়িত ছিলেন না। ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে জয় পাওয়া জাহাঙ্গীর আলম দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্রপ্রার্থী হন।

পাশাপাশি তার মাকেও করেন প্রার্থী। খেলাপিঋণ ইস্যুতে জাহাঙ্গীর আলমের মনোনয়ন বাতিল হলেও মাকে নিয়ে এগিয়ে যান। জায়েদা খাতুনের জয়ের পর জানা যায়, আওয়ামী লীগের একটি বড় অংশ তার পক্ষে কাজ করেছে। কোনো প্রকার প্রচার-প্রচারণা ছাড়াই তিনি বিপুল ভোটে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম নারী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর