শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৩ অপরাহ্ন

মধ্যম জানারখীলে যুবককে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় গ্রেফতার ৩

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক : / ৩৮২ বার পঠিত
আপডেট : সোমবার, ২৮ আগস্ট, ২০২৩, ৮:০৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃনগরের আকবরশাহ থানার বিশ্ব কলোনীর মধ্যম জানারখীল এলাকায় আবুল হাসনাত বাবু নামে এক যুবককে কুপিয়ে আহত করার মামলায় মানিক গ্যাংয়ের প্রধান মো. মানিক প্রকাশ লাল মানিকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।

গ্রেফতাররা হলেন, নগরের পাহাড়তলী থানার নয়াপাড়া এলাকার মৃত মোশারফ হোসেনের ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম আকাশ (২৬), আকবরশাহ থানার বিশ্বকলোনী মৃত মো. মোস্তফার ছেলে মো. মানিক প্রকাশ লাল মানিক (২৭) ও একই থানার জানারখিল এলাকার বাবুল সওদাগরের ছেলে মো.রুবেল (২৬)।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক তাপস কর্মকার গণমাধ্যম কে বলেন, জানারখীল এলাকায় হত্যার উদ্দেশ্যে আবুল হাসনাত বাবুকে কুপিয়ে মারধরের মামলায় পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরধারী এবং ছায়াতদন্ত অব্যাহত রাখে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার (২৭ আগস্ট) সকাল সাড়ে দশটায় ফেনী জেলার সোনাগাজী পৌরসভা এলাকা থেকে মো. জাহাঙ্গীর আলম আকাশকে গ্রেফতার করা হয়।

পরবর্তীতে আসামি জাহাঙ্গীর আলম আকাশের তথ্যের ভিত্তিতে কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট  এলাকায় অভিযান চালিয়ে মো.মানিক প্রকাশ লাল মানিক ও মো.রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়।

 

তিনি আরও জানান, গ্রেফতাররা জিজ্ঞাবাসাবাদে জানিয়েছে, এলাকায় তারা মানিক গ্যাংয়ের নেতৃত্ব দিতো এবং এলাকায় প্রভাব বিস্তার করার জন্য বিভিন্ন নাশকতামূলক কাজ করতো।

পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ আগস্ট রাত আটটার দিকে আসামিরা দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্রসহ আবুল হাসনাত বাবু, কাইয়ুম ও জয়নালকে মারার উদ্দেশ্যে জানারখিল এলাকায় প্রবেশ করে ৪-৫টি দোকান ভাংচুর করে।

পরবর্তীতে আবুল হাসনাত বাবুকে কিল-ঘুষি মেরে কিরিচ দিয়ে বাবুর মাথায় ও বাম পায়ের গোড়ালী কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় ঘটনাস্থলে এগিয়ে আসা সাগর ও আজাদকে কুপিয়ে জখম করে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে মুমূর্ষু অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাগর ও আজাদকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করেন। বাবুর শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় হাসপাতালের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি দেন। এ ঘটনায়  গত ১৯ আগস্ট আকবরশাহ থানায় ১০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৫-৬ জনকে আসামি করে মামলা করে একটি মামলা করা হয়।সূত্রঃ-বাংলানিউজ২৪৪।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরও খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর