1. admin@digonterbarta24.com : admin :
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নগরীতে চোলাইমদ সহ গ্রেফতার ১ মেজর সিনহা হত্যা মামলার তৃতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু প্রধানমন্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে পোস্ট করায় আকতারের ৭ বছরের কারাদণ্ড যে কোনো সময় খালেদার মুক্তি বাতিল করতে পারে সরকার ফেনীর সোনাগাজীতে আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর সমর্থকসহ ১৪ জন আটক রাশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে এলোপাতাড়ি গুলি, ৫ জন নিহত জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী মানবাধিকার ফাউন্ডেশন থেকে প্রত্যয়ন পত্র তুলে দেন সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী ডেমরা প্রেস ক্লাব স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক গাড়িচালক মালেক কে ৩০ বছর কারাদণ্ড কক্সবাজারের মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ২

বাগেরহাটে বাড়ছে শিশু রোগীর সংখ্যা,চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন হাসপাতাল কতৃপক্ষ

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক
  • সময় : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৪ বার পঠিত

সোহেল রানা বাবু,বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ প্রতিদিনই জেলার বাগেরহাট সদর হাসপাতাল সহ উপজেলা হাসপাতাল ও স্বাস্হ্যকেন্দ্রগুলোতে আশঙ্কাজনক হারে শিশুরোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গেল ৩০ দিনে জ্বর, সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়া সহ ঠাণ্ডাজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে সাড়ে দশ হাজারেরও অধিক শিশু বাগেরহাট সদর হাসপাতাল সহ জেলার বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্হ্যকেন্দ্রে চিকিৎসা নিয়েছে। এর মধ্যে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে আউট ডোরে প্রতিদিন দুই শতাধিক রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে।প্রতিদিনই বাড়ছে রোগীর সংখ্যা।

শয্যার দুইগুণ রোগী নিয়ে বিপাকে রয়েছেন চিকিৎসক সহ সংশ্লিষ্টরা পর্যাপ্ত সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা।আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়ার কারণে ঠাণ্ডাজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশু রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ১৫ই সেপ্টেম্বর বুধবার সকালে সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, ২৪ শয্যার বিপরীতে ৪৩ জন শিশু রোগী চিকিৎসাধীন আছে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিভাবকরা তাদের শিশুদের নিয়ে আসছেন চিকিৎসার জন্য।শয্যা সংকটে হাসপাতালের মেঝে ও বারান্দায় চিকিৎসা নিচ্ছে অনেক রোগী।

৯ মাস বয়সী সন্তান নিয়ে সদর উপজেলার দেপাড়া থেকে হাসপাতালে এসেছেন লাইলি বেগম সন্তানকে স্যালাইন দেওয়া অবস্হায় অসুস্হ শিশুর কান্না থামাতে কোলে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। জানালেন ছেলের নিউমোনিয়া হয়েছে।হাসপাতালে ভর্তি ৫ মাস বয়সী শিশু লামিয়া, কথা হয় তার বাবার সঙ্গে,তিনি বলেন, ৪ দিন আগে ঠাণ্ডাজনিত কারণে শিশু লামিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করি। তার জ্বর ও ঠাণ্ডা ছিল। পরে জানতে পারি তার নিউমোনিয়া হয়েছে।হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের দায়িত্বরত একাধিক নার্স বললেন, রোগীদের চাপ অনেক বেশি। মেঝে ও বারান্দায়ও চিকিৎসা নিচ্ছে অনেকে। কষ্ট হলেও আমরা তাদের প্রয়োজনীয় সেবা দিচ্ছি। রোগীর পাশাপাশি তাদের স্বজনদের চাপও বেশি।

ফলে সেবা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।বাগেরহাট সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনসালট্যান্ট (শিশু) ডা. শিহান মাহমুদ বলেন, এখন হাসপাতালে ঠাণ্ডাজনিত শিশু রোগীর সংখ্যা বেশ বেড়েছে। হঠাৎ করে আবহাওয়ার পরিবর্তন, মাঝেমধ্যে বৃষ্টি, গরম থাকায় শিশুরা দ্রুত ঘেমে যায়। ওই ঘাম থেকে সংক্রমণটা হয় সবচেয়ে বেশি। তবে এতে অভিভাবকদের আতংকিত হতে নিষেধ করেন তিনি।বাগেরহাটের ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ হাবিবুর রহমান জানান ,পরিবর্তিত আবহাওয়ার কারনে গত আগষ্ট মাস থেকে বাগেরহাট জেলায় আশংকাজনকভাবে শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে, বাগেরহাট সদর উপজেলায় এ পর্যন্ত সাড়ে চার হাজারের বেশী শিশুকে চিকিৎসা দিয়েছি এবং সমগ্র জেলায় দশ হাজারের অধিক রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছি। এটি একটি ভাইরাসজনিত রোগ তাই অভিভাবকদের আতংকিত হওয়ার কিছু নেই।

উপসর্গ অনুযায়ী বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসা নেওয়া সহ শিশুদের দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করতে বাড়তি এ্যান্টিবায়োটিক ব্যাবহারে নিরুৎসাহিত করেন জেলার প্রধান এই স্বাস্হ্য কর্মকর্তা।ক্রমবর্ধমান হারে শিশু রোগী বেড়ে যাওয়ায় এই চাপ সামলাতে স্বাস্হ্য বিভাগ হিমশিম খাচ্ছে বলেও জানান তিনি। তবে সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় এইপরিস্হিতি মোকাবেলায় কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন বলেন তিনি।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © দিগন্তের বার্তা ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD