1. admin@digonterbarta24.com : admin :
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নগরীতে চোলাইমদ সহ গ্রেফতার ১ মেজর সিনহা হত্যা মামলার তৃতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু প্রধানমন্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে পোস্ট করায় আকতারের ৭ বছরের কারাদণ্ড যে কোনো সময় খালেদার মুক্তি বাতিল করতে পারে সরকার ফেনীর সোনাগাজীতে আ’লীগের মেয়র প্রার্থীর সমর্থকসহ ১৪ জন আটক রাশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে এলোপাতাড়ি গুলি, ৫ জন নিহত জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী মানবাধিকার ফাউন্ডেশন থেকে প্রত্যয়ন পত্র তুলে দেন সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরী ডেমরা প্রেস ক্লাব স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক গাড়িচালক মালেক কে ৩০ বছর কারাদণ্ড কক্সবাজারের মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ২

১৬ বছর ধরে শুক্রবার এলেই তিনি নববধূ হন

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক
  • সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৮১ বার পঠিত

বিনোদন ডেস্কঃ পাকিস্তানি নারী হিরা জিশান, বয়স বিয়াল্লিশ। তিনি বিগত ১৬ বছর ধরে শুক্রবার এলেই তিনি নববধূ হন। পাকিস্তানের চার সন্তানের এই জননীর এমন অদ্ভুত শখে হতবাক পড়শিরাও। তবে এর পিছনে রয়েছে এক করুণ কাহিনি।

খবর ডেইলি পাকিস্তানের।

 

জানা গেছে, প্রায় ১৬ বছর আগে হিরার মা খুব অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেসময় অসুস্থ অবস্থায় মেয়েকে নিয়ে তাঁর চিন্তার শেষ ছিল না। তবে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় মায়ের প্রবল ইচ্ছা ছিল মৃত্যুর আগে মেয়েকে নববধূর বেশে দেখে যাবেন। তখন তড়িঘড়ি করে হিরার মাকে রক্ত দেওয়া হাসপাতালেরই এক কর্মীকে বিয়ের পাত্র ঠিক করা হয়। মায়ের ইচ্ছে মতো সেই কর্মীকেই বিয়ে করেন হিরা।

হিরা জানান, খুব সাধারণ সাজে এক কাপড়েই সেসময় হাসপাতালে বিয়ে করেন তিনি। মায়ের অসুস্থতার সময় আর চার-পাঁচটা বিয়ের মতো ধুমধাম করা হয়নি।

তবে দুর্ভাগ্যক্রমে বিয়ের কয়েক দিনের মধ্যেই হিরার মায়ের মৃত্যু হয়।

 

এতে প্রচণ্ড ভেঙে পড়েছিলেন হিরা। পরে বিয়ে কয়েক বছরে ছয় সন্তানের মধ্যে হিরা দুই সন্তানকে হারিয়ে আরও শোকে বিহ্বল হয়ে পড়েন।  দুইটা শোক তাকে পাথর করে দেয়, এতে অবসাদ গ্রাস করে হিরাকে। সেই অবসাদ থেকে নিজেকে বের করে আনার জন্যই প্রতি শুক্রবার নববধূর বেশে নিজেকে সাজান এই পাকিস্তানি নারী।

তার স্বামী লন্ডনে থাকেন।

 

হিরার কথায়, ‘একাকিত্ব থেকে নিজেকে বের করে আনতে এবং অবসাদ থেকে নিজেকে মুক্ত করতে- নিজেকে আনন্দ দিতেই এইভাবে প্রতি শুক্রবার নববধূ সাজেন তিনি। ’ এভাবে বিগত ১৬ বছর পার করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারি পাকিস্তানি গণমাধ্যম ডেইলি পাকিস্তান এক প্রতিবেদনে এই খবর প্রকাশ করে। এছাড়া হিরার একটি ভিডিও সাক্ষাৎকারও প্রকাশ করে গণমাধ্যমটি, যা পরবর্তীতে ভাইরাল হয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © দিগন্তের বার্তা ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD