1. admin@digonterbarta24.com : admin :
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ইংল্যান্ডের কাছে পাত্তাই পেল না ওয়েস্ট ইন্ডিজ পটুয়াখালীতে নৌকার মনোনয়ন পেলো রাজাকার পুত্র ও সাবেক বিএনপি নেতা গোলসাছড়ি জনবল বৌদ্ধ বিহারে ১ম বারের মত দানোত্তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত বড়লেখায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযানে ৩টি প্রতিষ্টানকে জরিমানা কমলগঞ্জের সড়ক পাকা কনণের দাবিতে গ্রামবাসীর মানববন্দন হাজরাবাড়ি পৌর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত খাগড়াছড়ির বীর মুক্তিযোদ্ধা মনু মিয়া’র রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন বাগেরহাটে রাস্তার পাশ থেকে নবজাতকের ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার পথশিশুদের স্বপ্নের ঠিকানা স্বপ্নপুরী বাগেরহাটে জনতা ব্যাংক এর আয়োজনে রোড শো অনুষ্ঠিত

নাটুয়ারপাড়া ইউনিয়ন রক্ষা বাঁধের পাশ থেকে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক
  • সময় : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৬ বার পঠিত

মোঃ তৌফিকুল ইসলাম,জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জঃএকদিকে যমুনার তান্ডবে ভাঙছে বাধের বাধের এক অংশ অন্যদিকে ওই বাধেরই অন্য অংশের পাশ ঘেষে তোলা হচ্ছে বালি। পানির মধ্যে অনেকগুলো ড্রেজার বসিয়ে দিনের পর দিন বালি তুলে তা বিক্রি করে দিচ্ছে এক শ্রেণির প্রভাবশালী ব্যক্তিগণ। এতে করে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর প্রায় কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত উপজেলার নাটুয়ারপাড়া ইউনিয়ন রক্ষা বাঁধটি এখন চরম ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে। আতঙ্কে রয়েছে নাটুয়ারপাড়া ইউনিয়নসহ আশপাশের ১৫ গ্রামের মানুষ। যমুনার চরাঞ্চলে অবস্থিত নাটুয়ারপাড়া ইউনিয়নটি নানা কারণে কাজিপুরের গুরুত্বপূর্ণ। বার বার ভাঙনের পরেও এই ইউনিয়নটির গুরুত্ব একটুও কমেনি। বরং কয়েক বছর পূর্বে পশ্চিমে মেঘাই আর পূর্বে নাটুয়ারপাড়া ঘাটকে কেন্দ্রে করে দেশের ৩২তম নৌ-বন্দর ঘোষিত হয়েছে। এই অঞ্চলটিকে নদী ভাঙন থেকে রক্ষায় ২০১১ সালে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নাটুয়ারপাড়া রক্ষা বাধের নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এরপর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বকুল সরকার এই ব্াধটিকে টিকিয়ে রাখতে উপজেলা পরিষদ এবং স্থানীয় এমপি’র বরাদ্দ দিয়ে বাধটির কাজ করেন। ২০১৮ সালে নাটুয়ারপাড়া বাজার সমিতির লোকজন এই বাধ রক্ষায় নিজেরা অর্থ প্রদান করেন।

বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান নিজেও বাধ রক্ষায় কাজ করে যাচ্ছেন। অথচ এরই মধ্যে ওই বাধের গোড়ার দিক থেকে বালি তুলে বিক্রি করায় শঙ্কিত হয়ে পড়েছে এলাকার মানুষ।
বালি উত্তোলনকারি আবুল কাসেম জানান, ‘আমার জমি থেকে আমি বালি তুলছি। সেখানে কার কি অসুবিধা হল তা দেখার দায়িত্ব আমার না।’
নাটুয়ারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান চাঁন জানান,‘ ঐ জমির মালিককে নিষেধ করলেও তিনি মানছেন না। নাটুয়ারপাড়া ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি আব্দুর রহিম মাস্টার জানান, একাধিকবার বলেও কাজ হয়নি।

আপনারা (সাংবাদিকগণ) একটু লিখুন। প্রশাসন দেখুক।’
কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, এলাকাবাসির জন্য বাঁধটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ পর্যন্ত কেউ বালি উত্তোলনের বিষয়টি আমাকে জানায়নি। এখন জানলাম। খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © দিগন্তের বার্তা ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD