1. admin@digonterbarta24.com : admin :
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মিরসরাইয়ে শিল্প নগর পরিদর্শনে সৌদি আরবের মন্ত্রীর সেনবাগে জিতেনি নৌকার কোন প্রার্থী চট্টগ্রামের সংবাদপত্র-শিল্পসাহিত্য ও সংস্কৃতির মহীরুহ বটবৃক্ষ এম এ মালেকঃ শুকলাল দাশ স্থানীয় লক্ষ্যভিত্তিক গুচ্ছগ্রাম বাস্তবায়নে ভূমি মন্ত্রণালয় চট্টগ্রামে জেনারেল হাসপাতালে নন কোভিড ইউনিটে আইসিইউ বেড উদ্বোধন দর্শনা থানা পুলিশের অভিযানে মাদকদ্রব্য সহ ২ (দুই) কেজি গাঁজা উদ্ধার কেশবপুরে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি ২২ জনের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ঝালকাঠিতে ১০০ টাকায় ১৪ তরুণ-তরুণীর পুলিশে চাকরী আন্তঃবাহিনী কাবাডি প্রতিযোগিতা-২০২১ শুরু বিএমপি কমিশনারের সাথে টেলিভিশন চিত্র সাংবাদিক এসোসিয়েশনের সৌজন্য সাক্ষাৎ

কিশোরগঞ্জের সফল নারী উদ্দ্যেক্তা “নাহিদা সুলতানা জিসান”

দিগন্তের বার্তা ২৪ ডেস্ক
  • সময় : শনিবার, ২৬ জুন, ২০২১
  • ৪৬৯ বার পঠিত

দিগন্তেরবার্তা২৪,ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জের মেয়ে “নাহিদা সুলতানা জিসান“।যিনি একজন সফল উদ্যোক্তা, সফল ব্যবসায়ী। তিনি ২০১৪ সাল থেকে চালিয়ে যান জীবন সংগ্রামের একটি অংশ অনলাইন ব্যবসা।তবে থেমে থাকেননি তিনি। দুর্গম পথ এবং ব্যার্থতার গ্লানি উপেক্ষা করে আজ সাফল্যর দ্বারপ্রান্তে ” নাহিদা সুলতানা জিসান “।হাটি হাটি পা পা করে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে সাথে নিয়ে তিনি হয়ে উঠেন কিশোরগঞ্জের সফল নারী উদ্যোক্তা।

”উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প নিয়ে টেকজুমের এবারের আয়োজন।কিশোরগঞ্জের মেয়ে ” নাহিদা সুলতানা জিসান ” এর উদ্যোক্তা হয়ে ওঠা নিয়ে বিস্তারিত জানাচ্ছেন দিগন্তের বার্তা ২৪ এর স্টাফ রিপোর্টার। পাঠকদের উদ্দেশ্যে সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হলো-

আপনার সম্পর্কে যদি কিছু বলতেন?
আসসালামু আলাইকুম! আমি নাহিদা সুলতানা জিসান, একজন অনলাইন বিজনেস ওমেন ও নারী উদ্যোক্তা। বর্তমান ঠিকানা- হলান, দক্ষিনখান। আমার বিজনেস পেইজ- “BD Beauty Adore“।

উদ্যোক্তা আগ্রহ কিভাবে তৈরি হলো?
আমার সবসময় ইচ্ছা ছিল আত্মনির্ভরশীল হয়ে ওঠার, গত ২০১৪ সাল থেকে অনলাইন বিজনেস করে আসছি।শুরুটা আমার জন্য ততটা সহজ ছিল না, আমার এই অনলাইন বিজনেসিং দেখে অনেকেই মনে করতো অযথা সময় নষ্ট করছি। আজ থেকে ৮ বছর আগে অনলাইন বিজনেস সম্পর্কে মানুষদের ততটা জ্ঞান বা ধারনা ছিল না। তখন কিছু সফল নারী উদ্যোক্তা দের কার্যক্রম দেখে আমিও  নারীদের পোশাক নিয়ে স্বল্প পরিসরে বিজনেস শুরু করে দেই।

আপনি এই অনলাইন বিজনেসে কাকে আইডল হিসেবে দেখছেন?
যখন বিজনেসটা শুরু করি তখন আমার মনের আগ্রহ আত্মনির্ভরশীলতাই ছিল আমার আইডল, নারী উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার অদম্য ইচ্ছা ও মনোভাবই ছিল মুলত আমার আইডল।

কতটুকু সফলতা লাভ করেছেন বলে মনে করেন?
আলহামদুলিল্লাহ! অবশ্যই নিজেকে একজন সফল নারী উদ্যোক্তা  হিসেবেই মনে করি। বিগত আট বছর এই অনলাইন বিজনেস চালিয়ে যাচ্ছি এবং উপার্জনও করছি। একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে অনেক ভালোবাসা ও দোয়া পাচ্ছি।

আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?
ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তো অনেক, নারীদের আত্মনির্ভরশীল গড়ে তোলার লক্ষ্যে নিজেকে একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে অন্যদের অনুপ্রেরণা দিতে- বিভিন্ন সেমিনার, ওয়ার্কশপ ও উদ্যোক্তা ট্রেনিং দিয়ে নারীদের আত্মনির্ভরশীল গড়ে তোলতে চাই। সফল উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার মানসিকতা তৈরি করতে চাই, বিভিন্ন সেবামুলক সামাজিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে নিজেকে দেশের সফল নারী ব্যবসায়ী হিসেবে উপস্থাপন করতে চাই এবং অন্যদেরও সেই প্লাটফর্ম করে দিতে চাই, ইনশাল্লাহ।

আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা যদি বলতেন?
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে অনার্স করেছি।

আপনার চ্যালেঞ্জ গুলো কিভাবে মোকাবেলা করেছেন?
অনলাইন বিজনেস অবশ্যই একটা বড় চ্যালেঞ্জ। ভোক্তা বা কাস্টমারদের কাছে নিজেকে উপস্থাপন করা, প্রোডাক্ট সরবরাহ করাও একেকটা চ্যালেঞ্জ।কাস্টমারদের কাছে একজন বিশ্বস্ত সেলার হিসেবে পরিচিত হওয়া এসব কর্মকান্ডে অনেক প্রতিবন্ধকতার মুখে পরতে হয় বিশেষ করে নারীদের জন্য। তেমনই আমার জন্যেও কাজগুলো চ্যালেঞ্জিং ছিল কিন্তু আলহামদুলিল্লাহ  আমার পরিবার ও আমার হাসব্যান্ডের অনেক সাপোর্ট ছিল। জননেত্রী শেখ হাসিনা নারীদের উন্নয়নের জন্যে অনেক কিছু করে আসছেন এবং এভাবে আমিও আগামীতে এগিয়ে যেতে চাই।

আপনি কি কি প্রোডাক্ট নিয়ে কাজ করেন?

আমি শুরু থেকেই নারীদের পোশাক ও প্রসাধনী নিয়ে কাজ করে আসছি। আগামীতে নারীদের অগ্রগতির জন্য আমি বিভিন্ন ওয়ার্কশপ ও সেমিনার গড়ে তুলবো। গ্রামীন নকশিকাঁথা ও হাতের কাজশিল্পের অগ্রগতিতে সাহাজ্য করবো।

বর্তমানে কভিড১৯ এ ই-কমার্স?
এই পেনডামিকে আমরা সকলেই আতঙ্কে আছি, অর্থনৈতিকভাবে সবারই খারাপ সময় যাচ্ছে। তবে অনলাইন বিজনেসটা স্বাস্থ্যসচেতন ভাবেই করা যাচ্ছে বলে এটি সবার কাছে সহজলভ্য ও পছন্দনীয় হয়ে ওঠেছে। তাই এই সময়ে ই-কমার্স অনেক পরিচিতি লাভ পেয়েছে সকলের কাছে।

পরিশেষে স্রোতাদের উদ্দ্যেশ্যে কিছু বলুন?

সবার উদ্দেশ্যে এটাই বলবো যে, মন থেকে চাইলে সবকিছুই সম্ভব। প্রথম পদক্ষেপ সব সময়ে একটু কঠিন হয় তাই নতুন উদ্যোক্তা হতে হলে একটু ঝুঁকি নিতেই হবে। নারী উন্নয়নের জন্য অনলাইন বিজনেস একটি বিরাট প্লাটফর্ম, নিজেকে সফল উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলতে নারী অগ্রগতির কোনো বিকল্প নেই।তাই সবার সাপোর্ট ও মনের জোর অনেক গুরুত্বপূর্ণ।  আর বেশি কিছু বলার নেই, সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © দিগন্তের বার্তা ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD